hasina

ব্রিটিশ এয়ারওয়েজকে জরিমানা

10

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক:  ব্রিটিশ  এয়ারওয়েজকে (বিএ) দুই কোটি পাউন্ড জরিমানা করেছে দেশটির ইনফরমেশন কমিশনারস অফিস (আইসিও)। চার লাখের বেশি গ্রাহকের ব্যক্তিগত ও আর্থিক তথ্যের সুরক্ষা দিতে ব্যর্থ হওয়ায় এ জরিমানা করা হয়েছে। আইসিও’র ইতিহাসে এটাই সর্বোচ্চ জরিমানা।

২০১৮ সালের গ্রীষ্মে সাইবার হামলার কবলে পড়েছিল প্রতিষ্ঠানটি। হামলার পর দুই মাস পর্যন্ত বিষয়টি শনাক্ত করতে পারেনি ব্রিটিশ এয়ারওয়েজ। এবার তদন্তের প্রেক্ষিতে প্রতিষ্ঠানটিকে জরিমানা করেছে আইসিও।

প্রায় চার লাখ ২৯ হাজার ৬১২ জন গ্রাহক এবং কর্মীর ব্যক্তিগত ডেটা অ্যাকসেস করেছে হামলাকারী। এর মধ্যে দুই লাখ ৪৪ হাজার গ্রাহকের নাম, ঠিকানা, লেনদেন কার্ড নাম্বার এবং সিভিভি নাম্বারও রয়েছে। নিরাপত্তা ব্যবস্থায় দুর্বলতাগুলো শনাক্ত করে সেগুলো সমাধান করতে ব্রিটিশ এয়ারওয়েজ ব্যর্থ হয়েছে বলে তদন্তে পেয়েছে আইসিও তদন্তকারীরা।

নিরাপত্তার সমস্যাগুলো সমাধান করা হলে ২০১৮ সালের সাইবার হামলা প্রতিহত করা যেত বলেও জানিয়েছেন তদন্তকারীরা। তদন্তে আরও উঠে এসেছে যে, ২০১৮ সালের ২২ জুন নিজে থেকে হামলার বিষয়টি শনাক্ত করেনি ব্রিটিশ এয়ারওয়েজ। দুই মাসের বেশি সময় পর ৫ সেপ্টেম্বর এ বিষয়ে প্রতিষ্ঠানটিকে সতর্ক করেছে তৃতীয় পক্ষ। বিষয়টি তৃতীয় পক্ষের মাধ্যমে আমলে আসার পরই সক্রিয় হয়ে আইসিওকে জানিয়েছে ব্রিটিশ এয়ারওয়েজ।

ইনফরমেশন কমিশনার এলিজাবেথ ডেনহাম বলেছেন, দবিএ’র কাছে ব্যক্তিগত তথ্য দিয়ে মানুষ আস্থা রেখেছেন এবং সেগুলো নিরাপদ রাখতে যথাযথ পদক্ষেপ নিতে ব্যর্থ হয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। তাদের ব্যর্থতা গ্রহণযোগ্য নয় এবং এতে লাখো মানুষ আক্রান্ত হয়েছেন, এর ফলে উদ্বেগ এবং হতাশাও তৈরি হতে পারে। এ কারণেই আমরা বিএ-কে দুই কোটি ব্রিটিশ পাউন্ড জরিমানা করেছি, যা এ যাবতকালের সর্বোচ্চ।

সূত্র : বিবিসি।