hasina

১৪ কোটি ডলারের সহায়তা দুবাইয়ের

ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান

23

নভেল করোনাভাইরাস মহামারির কারণে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানগুলোর জন্য ৫০ কোটি দিরহাম বা ১৩ কোটি ৬০ লাখ ডলারের সহায়তা প্যাকেজ ঘোষণা করেছে দুবাই। সংযুক্ত আরব আমিরাতের (ইউএই) বাণিজ্য নগরীটির ক্রাউন প্রিন্স হামদান বিন মোহাম্মদ শনিবার এক টুইটে এ তথ্য নিশ্চিত করেন। খবর অ্যারাবিয়ান বিজনেস।

সহায়তা প্যাকেজের আওতায় অফিসের বাড়া, সরকারি ফি ও জরিমানা মওকুফ করা হবে। যুবরাজ হামদান জানান, নতুন এ প্যাকেজসহ দুবাইয়ের সরকারি সহায়তা প্যাকেজের আকার দাঁড়াচ্ছে ৬৮০ কোটি দিরহাম বা ১৮৫ কোটি ডলার।

মধ্যপ্রাচ্যের ব্যবসার প্রাণকেন্দ্র হিসেবে পরিচিত দুবাই কোভিড-১৯ মহামারিতে মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। কারণ বাণিজ্য নগরীটির অর্থনীতির মূল চালিকাশক্তি ছিল পর্যটন ও বাণিজ্য। কিন্তু বৈশ্বিক লকডাউন ও সীমান্তে কঠিন বিধিনিষেধের কারণে এ খাতগুলোই সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল (আইএমএফ) বলছে, চলতি বছরে সংযুক্ত আরব আমিরাতের (ইউএই) অর্থনৈতিক কার্যক্রম ৬ দশমিক ৬ শতাংশ সংকুচিত হবে। বিদেশীনির্ভর দুবাইয়ে কর্মী ছাঁটাই ও দুর্বল অভ্যন্তরীণ চাহিদা ব্যবসা জগতে বিপর্যয় নিয়ে এসেছে।

শেখ হামদান বলেন, কোভিড-১৯ মহামারির নেতিবাচক প্রভাবের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের পাশাপাশি আমরা ব্যবসা খাতকে সহায়তার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। আমাদের অর্থনীতির প্রাণ হচ্ছে ব্যবসা খাত। দুবাইয়ের ভবিষ্যৎ উচ্চাকাঙ্ক্ষার সঙ্গে সঙ্গতি রেখে আমাদের ব্যবসায় পরিবেশ পুনরুজ্জীবিত করা এবং উদ্যোক্তা ও বিনিয়োগকারীদের জন্য নতুন দিগন্ত খুলে দিতে কাজ করে যাচ্ছি আমরা।

মহামারিতে ক্ষতিগ্রস্ত বিজ্ঞাপন সংস্থাগুলোর তিন মাসের মিউনিসিপ্যালিটি ফি মওকুফ করা হবে। বৈশ্বিক লকডাউনের শুরুর দিকে ১৫ মার্চ থেকে ১৬ জুনের মধ্যে দুবাই মিউনিসিপ্যালিটিতে বিজ্ঞাপনের পারমিট ফি দিতে হবে না ওই সংস্থাগুলোর। বেসরকারি সেবা কেন্দ্রগুলোর লাইসেন্সের নবায়ন ফি মওকুফ করা হচ্ছে। এছাড়া ওই সেবা কেন্দ্রগুলোয় কর্মরত স্বাস্থ্যকর্মীদের লাইসেন্সের মেয়াদ ছয় মাস পর্যন্ত বাড়ানো হচ্ছে। এছাড়া ২০২০ সালের শেষ নাগাদ বেসরকারি এ সেবা কেন্দ্রগুলোর ভাড়া ৫০ শতাংশ পর্যন্ত মওকুফ করা হচ্ছে।

ট্যাক্সি সেবা খাতের জন্যও বিশেষ সহায়তা থাকছে বলে জানান যুবরাজ হামদান। বন্দরে আমদানি পণ্য ছাড়াতে শুল্ক বিভাগকে যে ৫০ হাজার দিরহামের ব্যাংক বা নগদ গ্যারান্টি দিতে হতো, তা আরও কয়েক মাস লাগবে না। এছাড়া প্রতি লেনদেনে শুল্ক ফি ৫০ দিরহাম থেকে কমিয়ে ৫ দিরহাম করা হচ্ছে। নভেম্বরের শেষ নাগাদ রিটেইল খাতের সরকারি পারমিট ফিতেও স্থগিতাদেশ বহাল থাকবে।