hasina

ফিলিপাইনে ‘সবচেয়ে’ শক্তিশালী টাইফুনের আঘাত

6

পূর্বাভাসটাই সত্যি হলো। ঘণ্টায় ২২৫ কিলোমিটার গতিতে ফিলিপাইনে রবিবার আঘাত হেনেছে টাইফুন গনি। চলতি বছরে এত শক্তি নিয়ে কোনো ঘূর্ণিঝড় আসেনি।

স্থানীয় আবহাওয়া অধিদপ্তরকে উদ্ধৃত করে বিবিসি জানিয়েছে, ক্যাটানডুয়ানেস দ্বীপে রবিবার ৪টা ৫০ মিনিটে টাইফুনটি আঘাত হানে। এরপর সেটি লুজনের প্রধান দ্বীপ অতিক্রম করে।

এই ঝড়ের কবলে পড়ার শঙ্কায় প্রায় ১০ লাখ মানুষকে এখন পর্যন্ত বিভিন্ন আশ্রয়কেন্দ্রে সরিয়ে নেয়া হয়েছে।

আবহাওয়া অধিদপ্তর জানিয়েছে, ‘পরবর্তী ১২ ঘণ্টায় ভারি বৃষ্টিপাতের পাশাপাশি ভূমিধসের শঙ্কা রয়েছে।’

ফিলিপাইনে রলি নামে পরিচিত ‘গনি’র আগে শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় ছিল হাইয়ান। ২০১৩ সালের ওই টাইফুনে ৬ হাজার মানুষ মারা যান।

এ বছর কভিড-১৯ ভাইরাসের কারণে মোকাবিলার প্রস্তুতি বাধাগ্রস্ত হচ্ছে। দেশটিতে এখন পর্যন্ত প্রায় ৪ লাখ মানুষ নতুন রোগে পজিটিভ শনাক্ত হয়েছেন। মারা গেছেন ৭ হাজার ২২১ জন।

এক সপ্তাহ আগে ফিলিপাইনে ঘূর্ণিঝড় মোলাভে আঘাত হানে। এতে ২২ জনের মৃত্যু হয়। গ্রাম ও ফসলের খেত প্লাবিত হয়। একই এলাকায় আবার ঘূর্ণিঝড় গনি আঘাত হেনেছে।

সিভিল ডিফেন্স বিভাগের প্রধান রিকার্ডো জালাদ বলেন, বিভিন্ন এলাকা থেকে প্রায় ১০ লাখ মানুষকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে।

ফিলিপাইনের রাজধানী ম্যানিলায় বিমানবন্দর বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। সেখানকার নিচু বস্তি এলাকা থেকে বাসিন্দাদের সরিয়ে নেয়া হচ্ছে।