অ্যাস্ট্রাজেনেকার ভ্যাকসিন ইউরোপের বাইরে রপ্তানিতে আগ্রহী নয় ইইউ

ভ্যাকসিন সরবরাহের চুক্তি পূরণ করার আগ পর্যন্ত অ্যাস্ট্রাজেনেকার করোনা ভ্যাকসিন ইউরোপ থেকে অন্য কোথাও রপ্তানি না হওয়ার বিষয়টি ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) নিশ্চিত করবে।

ইইউর অভ্যন্তরীণ বাজার কমিশনার থিয়েরি ব্রেটন শুক্রবার এ কথা জানিয়েছেন বলে যুক্তরাজ্য ভিত্তিক সংবাদ সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে।

থিয়েরি ব্রেটন বলেন, ‘অবশ্যই অ্যাস্ট্রাজেনেকা একটি ইস্যু। এই কোম্পানির সঙ্গে আমাদের ঝামেলা আছে।’ অন্য কোম্পানিগুলো ঠিকঠাকভাবে ভ্যাকসিন সরবরাহ করছে বলেও যোগ করেন তিনি।

ব্রেটন বলেন, ‘আমাদের কাছে সরঞ্জাম রয়েছে এবং আমরা নিশ্চিত করব যে সবকিছু ইউরোপেই থাকবে যতক্ষণ পর্যন্ত কোম্পানিটি তাদের প্রতিশ্রুতি পূরণ না করবে। এ বছরের শেষ নাগাদ ইউরোপ করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন উৎপাদনে নেতৃত্ব দেবে। পুরো মহাদেশ জুড়ে ৫২টি কারখানা এতে ভূমিকা রাখছে।’

‘বৈশ্বিক রোগ প্রতিরোধ’ অর্জনের জন্য আগামি জুলাইয়ের মাঝামাঝি সময়ের মধ্যেই ইউরোপের যথেষ্ট সংখ্যক মানুষকে ভ্যাকসিন দেয়া উচিত বলে উল্লেখ করেন ব্রেটন। বলেন, ইউরোপে এ বছরের শেষ নাগাদ সব মিলিয়ে দুই থেকে তিনশ কোটি ডোজ ভ্যাকসিন তৈরি হয়ে যাবে।

ইউরোপীয় ইউনিয়ন বুধবার থেকে করোনার ভ্যাকসিন রপ্তানির ওপর নজরদারি বৃদ্ধি করেছে। এর ফলে ব্রিটেনের মতো যেসব দেশে ভ্যাকসিন দেয়ার হার অনেক বেশি বা যারা ভ্যাকসিনের ডোজ অন্য কোনো দেশে দিচ্ছে না তাদের ভ্যাকসিন না দেয়ার ক্ষেত্রে আরও বেশি সুযোগ তৈরি হয়েছে।