hasina

করোনাভাইরাসঃ ২৬ মার্চের জনসমাগম স্থগিত

5

মুজিব বর্ষের পর করোনাভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে আগামী ২৬ মার্চ স্বাধীনতা দিবসের জনসমাগমও স্থগিত করা হবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ শনিবার সকালে রাজধানীর সিটি কলেজ কেন্দ্রে ঢাকা-১০ আসনের উপ-নির্বাচনে ভোট দেওয়ার পর এ কথা বলেন তিনি।

করোনাভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে আগামীতে সকল জনসমাগম স্থগিত করা হবে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘আগামীতেও যে সকল অনুষ্ঠান আছে যেখানে লোক সমাগম হয় সেগুলো আমরা বন্ধ করে দিবো। বিশেষ করে ২৬ মার্চ সাভার স্মৃতিসৌধে পুষ্পমাল্য অর্পণের কথা, আমি আলোচনা করবো। আমার মনে হয় সেটাও আমাদের স্থগিত রাখতে হবে।’

তিনি বলেন, ‘যারা স্বাধীনতার জন্য জীবন দিয়েছেন তাদের প্রতি আমরা নিজের মতো করে আমরা শ্রদ্ধা জানাবো। কিন্তু এই লোক সমাগমটা আমাদের বন্ধ করে দিতে হবে।’

‘এভাবে আমাদের যতগুলো অনুষ্ঠান আছে তা খুব সীমিত আকারে, আর যেখানে জনমাগম হবে তা বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। যাতে করা এই সংক্রামক সারা বাংলাদেশে ছড়িয়ে না পড়ে।’

করোনাভাইরাস মুজিববর্ষ উদযাপনে জনসমাগম স্থগিত করার কথা উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘ইতিমধ্যে আপনারা জানেন আমাদের লোক সমাগম হয় এমন কর্মসূচি আমরা বাতিল করে দিয়েছি বা স্থগিত করে দিয়েছি। সবচেয়ে দুঃখজনক হলো জাতির পিতার জন্মশত বার্ষিকীর উদযাপন করার জন্য অনেক কর্মসূচি আমরা নিয়েছিলাম। কিন্তু সেখানে লোক সমাগম হবে আমরা সেটাও বন্ধ করে দিয়েছিলাম।’

‘আমরা যে এটাকে কতটা গুরুত্ব দিয়েছি সেটা আপনারা অনুধাবন করতে পারেন। আমরাতো জন্মশতবার্ষিকী একবারেই পেলাম। আরতো পাবো না। কিন্তু তারপরও আমরা জনসাধারণের নিরপত্তা, কল্যাণে আমরা এই কর্মসূচি স্থগিত করে রেডিও, টেলিভিশন আর অনলাইনে প্রচার করেছি। আগামীতেও যে সকল অনুষ্ঠান আছে যেখানে লোক সমাগম হয় সেগুলো আমরা বন্ধ করে দিবো।’

এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, প্রধানমন্ত্রীর মেয়ে সায়মা ওয়াজেদ হোসেন পুতুল, ঢাকা-১০ আসনের উপ-নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী মো. শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন।