মোবাইল ব্যাংকিংয়ে প্রতিদিন ১ হাজার টাকা ফ্রি ক্যাশআউট

5

বাংলাদেশ ব্যাংক করোনা ভাইরাসের বিস্তার রোধ ও প্রয়োজনে উদ্ভূত যে কোনো পরিস্থিতি মোকাবিলায় নিরবচ্ছিন্ন ব্যাংকিং ও পরিশোধ সেবা অব্যাহত রাখার উদ্যোগ নিয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৯ মার্চ) বাংলাদেশ ব্যাংক তফসিলি ব্যাংক ও মোবাইলে ব্যাংকিং সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানগুলোর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তাদের কাছে এ সংক্রান্ত একটি প্রজ্ঞাপন জারি করে পাঠিয়েছে।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, শুধু নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যাদি ও ওষুধ ক্রয়ের ক্ষেত্রে এমএফএসের ব্যক্তি হতে ব্যক্তি (পি-টু-পি) লেনদেনে (যে কোনো চ্যানেলে) কোনো চার্জ কর্তন করা যাবে না এবং এ লেনদেনের সর্বোচ্চ মাসিক সীমা ৭৫ হাজার টাকা থেকে ২ লাখ টাকায় উন্নীত করা যাচ্ছে।

ডেবিট ও ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে দেশের অভ্যন্তরে লেনদেনের ক্ষেত্রে শুধু নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য ও ওষুধ ক্রয়ের ক্ষেত্রে কোনো ছাড় বা বিনিময় ফেরত পাওয়া যাবে না। এ ক্ষেত্রে দৈনিক সর্বোচ্চ ১৫ হাজার টাকা ও মাসিক সর্বোচ্চ ১ লাখ টাকার লেনদেন সীমা প্রযোজ্য হবে। এছাড়া এমএফএস লেনদেনের ক্ষেত্রে দিনে সর্বোচ্চ ১ হাজার টাকার ক্যাশআউট সম্পূর্ণ চার্জবিহীন রাখতে হবে।

প্রজ্ঞাপনে আরও বলা হয়, নিয়ার ফিল্ড কমিউনিকেশন (এনইফ) সুবিধাযুক্ত কার্ড-এর লেনদেন সীমা ৩ হাজার টাকা হতে ৫ হাজার টাকায় উন্নীত করা হয়েছে। একই সঙ্গে নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য ও ওষুধ বিক্রিকারী ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী ও উদ্যোক্তাদের জন্য লেনদেনের ক্ষেত্রে কোনো ছাড় বা বিনিময় ফেরত পাওয়া যাবে না।