মাঠপর্যায়ের কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্যে ক্ষুদে বার্তা (আইজিপি) ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারীর

6

সারাদেশের মাঠপর্যায়ের কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্যে পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের কাছে ক্ষুদে বার্তা পাঠিয়েছেন বাংলাদেশ পুলিশের ইন্সপেক্টর জেনারেল (আইজিপি) ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী। বার্তায় তিনি পুলিশের বর্তমান কর্মকান্ডের জন্য গর্ববোধ করে তাদের নিজ নিজ সুরক্ষা নিশ্চিত করতে বলেন। গতকাল বিকেলে এক ক্ষুদেবার্তায় তিনি একথা বলেন। এদিকে এখন থেকে কেউ ব্যক্তিগতভাবে কাউকে নিত্য প্রয়োজনীয় সেবা ও সাহায্য দিতে চাইলে বিষয়টি পুলিশকে অবহিত করতে হবে বলে পুলিশ সদর দপ্তর থেকে জানানো হয়েছে।
ক্ষুদেবার্তায় আইজিপি বলেন, করোনার বিস্তাররোধে বাংলাদেশ পুলিশের প্রত্যেক সদস্য যেভাবে দেশ ও সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে, বাংলাদেশ পুলিশের ইন্সপেক্টর জেনারেল হিসেবে তাতে আমি অত্যন্ত গর্বিত ও সম্মানিত বোধ করছি। বাংলাদেশ পুলিশের প্রত্যেক সদস্যকে জানাচ্ছি আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা। তবে, জনগণকে সেবা প্রদানের পাশাপাশি নিজের, অধীনস্ত সদস্য, সহকর্মী এবং পরিবারের সর্বোচ্চ সুরক্ষার বিষয়টিও নিশ্চিত করতে হবে প্রত্যেককে। পাশাপাশি, সাধারণ মানুষকে বিশেষ পরিস্থিতিতে তাৎক্ষণিক সেবা প্রদানের ক্ষেত্রে অত্যন্ত সতর্ক হতে হবে, যেনো কোনোভাবেই জনসমাগমের সুযোগ সৃষ্টি না হয়। সরকার নির্দেশিত সোশ্যাল ডিসটেন্সিং এবং হোম কোয়ারেনটাইন বাস্তবায়নে পুলিশের কার্যক্রমের বর্তমান সফল ধারা অব্যাহত রাখতে সকলকে অনুরোধ জানাচ্ছি।
এদিকে, এখন থেকে কেউ ব্যক্তিগতভাবে কাউকে নিত্য প্রয়োজনীয় সেবা ও সাহায্য দিতে চাইলে বিষয়টি পুলিশকে অবহিত করতে হবে জানিয়েছে পুলিশ। গতকাল সন্ধ্যায় পুলিশ সদর দপ্তর থেকে এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। এতে বলা হয়, বর্তমান করোনা পরিস্থিতিতে নিত্য প্রয়োজনীয় সেবা ও সাহায্য নিয়ে সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়াচ্ছেন অনেকেই। দাঁড়াচ্ছে সেবাধর্মী অনেক প্রতিষ্ঠানও। খাদ্য ও সেবা বিতরণ করতে গিয়ে অনেক ক্ষেত্রেই লোক সমাগমের সুযোগ সৃষ্টি হচ্ছে এবং সোশ্যাল ডিসটেন্সিং এর নির্দেশনা যথাযথভাবে প্রতিপালন করা হচ্ছে না যা বর্তমান প্রেক্ষিতে অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ। তাই, যেকোনো প্রকার ত্রাণ ও সেবা বিতরণমূলক কাজের ক্ষেত্রে আগেভাগেই প্রশাসন ও পুলিশকে অবগত করে প্রয়োজনীয় সহযোগিতা নিতে সংশ্লিষ্ট সকলকে অনুরোধ করা হচ্ছে। পুলিশ সদরদফতরের এআইজি মো. সোহেল রানা জানান, সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে এই উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।