hasina

ভারতে আক্রান্তের সংখ্যা ১৩ হাজার ছাড়ালো

9

ভারতে প্রতিদিনই বাড়ছে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রণালয়ের পরিসংখ্যান অনুযায়ী ভারতে এ মারণ ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা এখন ১৩ হাজার ৩৮৭ জন। গত ২৪ ঘণ্টাতেই আক্রান্ত হিসাবে ধরা পড়েছেন এক হাজারেরও বেশি মানুষ। ওই রোগ দেশটিতে প্রাণ কেড়েছে মোট ৪৩৭ জনের।

তবে একটি অভ্যন্তরীণ সরকারি মূল্যায়ন থেকে জানা গেছে যে, মে মাসের প্রথম সপ্তাহেই দেশে করোনা সংক্রমিতের সংখ্যা তুলনামূলকভাবে সবচেয়ে বেশি হবে। তবে তারপরেই ধীরে ধীরে সেই সংক্রমণ কমবে বলেও আশা রাখছেন বিশেষজ্ঞরা।

তবে এটাও ঠিক যে, যত বেশি করে দেশে করোনা সংক্রমিতের সন্ধান মিলছে, ঠিক ততটাই দ্রুতহারে অনেকেই এই রোগের সাথে লড়াই করে জীবনযুদ্ধে জিতছেন। পরিসংখ্যান বলছে, ওই মারাত্মক রোগের সাথে লড়াই করে সাফল্য পাওয়ার হার শুক্রবার বেড়ে ১৩.০৬-এ দাঁড়িয়েছে, যেখানে এই পরিসংখ্যান বৃহস্পতিবার ছিল ১২.০২ এবং বুধবার ছিল আরো কম ১১.৪১। ফলে সংক্রমিত মানুষজনের সন্ধান বেশি করে মিললেও ক্রমশই এই ভাইরাসের সাথে যুঝে সাফল্য পাওয়ার পথেই হাঁটছে ভারত।

এর কারণ হিসাবে সরকারি কর্মকর্তারা অবশ্য এই যুক্তি দিচ্ছেন যে, করোনা সংক্রমণ হতে পারে কারোর মধ্যে এমন লক্ষণ দেখলেই তাড়াতাড়ি ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। ফলে আগামী সপ্তাহে দেশে করোনা সংক্রমিতের সন্ধান পাওয়ার হার আরো বাড়তে পারে।

‘পরের এক সপ্তাহ অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। ভারত করোনা সংক্রমণের বৃদ্ধিকে থামাতে আরো বেশি করে করোনা টেস্ট করার দিকে জোর দিচ্ছে। তীব্র শ্বাসকষ্ট বা করোনা সংক্রান্ত অন্য কোনো লক্ষণ দেখলেই এখন আর দেরি না করে তাদের সবারই পরীক্ষা করা হচ্ছে’, এনডিটিভিকে জানিয়েছেন এক সিনিয়র সরকারি আমলা।