তিন দিন আগে নমুনা দিয়ে করোনা উপসর্গে মৃত্যু

7

বগুড়ায় মোহাম্মদ আলী হাসপাতালের করোনা আইসোলেশনে থাকা ২৮ বছর বয়সী এক যুবক মঙ্গলবার দুপুরে মারা গেছেন। তার বাড়ি বগুড়া সদর উপজেলার সাবগ্রাম এলাকায়।

ওই যুবক শহরের জিরো পয়েন্ট সাতমাথা এলাকায় চটপটি বিক্রি করতেন। গত ১৮ এপ্রিল তার নমুনা সংগ্রহ করা হলেও এখন পর্যন্ত রিপোর্ট পাওয়া যায়নি।

মোহাম্মদ আলী হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানায়, জ্বর, কাশি ও শ্বাসকষ্টের সমস্যা নিয়ে ১৭ এপ্রিল সন্ধ্যার দিকে প্রথমে ওই যুবক শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে ভর্তি হন। তবে করোনা উপসর্গ থাকায় তাকে সেখান থেকে রাত ১০টার দিকে আইসোলেশন ইউনিট মোহাম্মদ আলী হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়।

মোহাম্মদ আলী হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক (আরএমও) ডা. শফিক আমিন কাজল জানান, হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মঙ্গলবার দুপুর ২টার দিকে ওই যুবকের মৃত্যু হয়। ১৮ এপ্রিল ওই যুবকের নমুনা সংগ্রহ করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজে পাঠানো হয়। তবে এখন পর্যন্ত তার কোনো রিপোর্ট পাওয়া যায়নি।

তিনি বলেন, স্বজনদের কাছে শুনেছি যুবকটি শহরের সাতমাথা এলাকায় চটপটি বিক্রি করতেন। তিনি করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়ায় সংক্রামক রোগের বিধি অনুযায়ী তার মরদেহ দাফন করা হবে।