hasina

করোনায় আক্রান্ত ৩৯২ জন পুলিশ

8

করোনাভাইরাসে ঝুঁকির মধ্যে কাজ করতে গিয়ে পুলিশে আক্রান্তের সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে। গত ৫দিনে সারাদেশে ১৭৪ জন পুলিশ সদস্য নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন করোনাভাইরাসে। গত ২৩ এপ্রিল আক্রান্তের সংখ্যা ছিলো ২১৮। তা বেড়ে বুধবার দাঁড়িয়েছে ৩৯২ জনে। আক্রান্তদের মধ্যে কনস্টেবল থেকে শুরু কওে রয়েছেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার পদমর্যাদার কর্মকর্তারাও।

পুলিশ কর্মকর্তারা বলছেন, রাজধানীসহ সারাদেশেই টহলসহ সাধারন মানুষের জান-মালের নিরাপত্তায় এবং অপরাধীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করতে দিন-রাত কাজ করতে হচ্ছে পুলিশকে। দিন-রাত মহাসড়কে, শহরের অলি-গলিতে দাযিত্ব পালন করছেন পুলিশ সদস্যরা। একই সাথে সামাজিক দুরত্ব নিশ্চিত করন ও কোয়ারেন্টিন নিশ্চিত করতেও ছুটে যাচ্ছেন তারা। অস্বাভাবিকভাবে মৃত্যুর পর লাশ উদ্ধার করে মর্গে নিয়ে যাচ্ছেন। এমনকি করোনা আক্রান্ত রোগীর মৃত্যুর পর যখন জানাযা, দাফন করাতে কেউ এগিয়ে যেতে চায় না তখনও এগিয়ে যাচ্ছে পুলিশ।

আইজিপি ড. বেনজীর আহমেদ বলেছেন, করোনায় আক্রান্ত পুলিশ সদস্যের সুচিকিৎসাকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে পর্যাপ্ত আয়োজন রাখা হয়েছে। রাজারবাগ কেন্দ্রীয় পুলিশ হাসপাতালসহ পুলিশের অন্যান্য হাসপাতালগুলোতে করোনা সংক্রান্ত চিকিৎসা সুবিধা বাড়ানো হয়েছে। এছাড়া বিভাগীয় পর্যায়েও করোনা আক্রান্ত পুলিশ সদস্যদের সুচিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

সূত্র মতে, হাট-বাজার বসার সময় নিয়ন্ত্রন, ত্রাণ বিতরণে শৃঙ্খলা বজায় রাখা, মানুষের চলাফেরার ক্ষেত্রে সরকারি নির্দেশ বাস্তবায়ন করতে গিয়ে কাছাকাছি যেতে হয় পুলিশ সদস্যদের। এতে কখন কিভাবে কে আক্রান্ত হচ্ছে বুঝা দুষ্কর হয়ে যায়। সবেচেয়ে বেশি পুলিশ সদস্য আক্রান্ত হয়েছেন ঢাকায়। তারপরেই রয়েছে গাজীপুর, গোপালগঞ্জ ও নারায়ণগঞ্জ। এছাড়াও দেশের বিভিন্ন এলাকায় পুলিশ সদস্যরা আক্রান্ত হয়েছেন। ঢাকাতে দেড় শতাধিক পুলিশ সদস্য করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন।
পুলিশ সদর দপ্তর সূত্রে জানা গেছে, দায়িত্ব পালনরত সব পুলিশ সদস্যের জন্য ইতিমধ্যে পর্যাপ্ত পরিমাণ সুরক্ষা সামগ্রী সংগ্রহ করা হয়েছে। এখন তা বিভিন্ন ইউনিটে পৌঁছে দেয়া হচ্ছে। করোনায় আক্রান্ত পুলিশ সদস্যদের চিকিৎসার জন্য পুলিশের হাসপাতাল গুলোতে প্রয়াজনীয় সব ধরণের ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।