গাড়ির চাহিদা শূন্যের কোটায়, দিশেহারা গাড়ির ব্যবসায়ীরা

6

বাংলাদেশ রিকন্ডিশন্ড ভেহিক্যাল ইম্পোর্টার্স অ্যান্ড ডিলারস অ্যাসোসিয়েশনের (বারভিডা) দাবি, করোনার কারণে ১২ শ কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে। গাড়ির চাহিদা প্রায় শূন্যের কোটায় নেমে যাওয়ায় আমদানি হওয়া আড়াই হাজার গাড়ি চট্টগ্রাম এবং মোংলা বন্দরে আটকা পড়ে রয়েছে। গুণতে হচ্ছে বন্দর ভাড়ার বাড়তি খরচ। ব্যাংক ঋণের সুদের পাশাপাশি প্রতিষ্ঠানের কর্মীদের বেতন পরিশোধ নিয়েও দিশেহারা গাড়ির ব্যবসায়ীরা।

বারভিডার সাবেক সভাপতি মো. হাবিব উল্লাহ ডন বলেন, এ খাত সরকারের রাজস্ব আয়ের একটি অন্যতম প্রধান উৎস। বছরে সরকারকে কয়েক হাজার কোটি টাকার রাজস্ব প্রদান করে থাকে। দেশের বর্তমান পরিস্থিতিতে রিকন্ডিশন্ড গাড়ি আমদানি ও বিপণন কার্যক্রম সম্পূর্নভাবে বন্ধ থাকায় এ খাতের আমদানিকারক ও ক্ষুদ্র-মাঝারি ব্যবসায়ীরা চরম অর্থনৈতিক সংকটে দিন কাটাচ্ছেন।
তিনি বলেন, সরকার আশ্বস্ত করেছেন বিভিন্ন ধরণের সুযোগ সুবিধা দিয়ে ব্যবসায়ীদের ক্ষতি থেকে উদ্ধার করবেন। তবে গাড়ি ব্যবসায়ীরা জানিয়েছেন, বেশিরভাগ গাড়ি ব্যাংক থেকে ঋণ নিয়ে আমদানি করা হয়েছে। ফলে ঋণের সুদ ফেব্রুয়ারি থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত ব্লক করতে হবে।