hasina

করোনা মোকাবিলায় ৩ লাখ কোটি ডলার ঋণ নিচ্ছে মার্কিন সরকার

7

করোনা মহামারীর ধাক্কায় অর্থবছরের দ্বিতীয় প্রান্তিকে ৩ লাখ কোটি ডলার ঋণ নেয়ার কথা জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র সরকার। ঋণের এই পরিমাণ ২০০৮ সালের অর্থনৈতিক মন্দার সময় নেয়া ঋণের চেয়ে অন্তত ৫ গুণ বেশি। দেশটির বর্তমান ঋণের পরিমাণ ২৫ ট্রিলিয়ন ডলার। বিবিসি, স্কাই নিউজ, ফ্রান্স২৪

মার্কিন প্রশাসন বলেছে, ৩ লাখ কোটি ডলারের ঘোষিত এই সহায়তা প্যাকেজের মধ্যে আছে স্বাস্থ্য তহবিল, নগদ সহায়তাসহ ত্রাণ কার্যক্রম। এই সহায়তা প্যাকেজের আকার দেশটির অর্থনীতির প্রায় ১৪ শতাংশ। দেশটির কিছু রিপাবলিকান নেতা বিপুল পরিমাণ এই ঋণের বোঝা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। বহু অর্থনীতিবিদ একে দীর্ঘমেয়াদি প্রবৃদ্ধির জন্য ঝুঁকিপূর্ণ বলে সতর্ক করেন।

এ ছাড়া যুক্তরাষ্ট্র বার্ষিক কর দানের সময়সীমা ১৫ এপ্রিল থেকে আরো বাড়িয়েছে। যার কারণে নগদ অর্থের সংকট আরো বেড়েছে।

মার্কিন কংগ্রেসনাল বাজেট অফিস গত মাসে পূর্বাভাস দেয়, চলতি বছর বাজেটঘাটতি ৩ দশমিক ৭ ট্রিলিয়ন ডলার ছাড়িয়ে যাবে। একই সঙ্গে সরকারের ঋণ ছাড়াবে জিডিপির ১০০ শতাংশ।

২০১৯ সালে সারা বছরে দেশটির ঋণের পরিমাণ ছিল ১ দশমিক ২৮ লাখ কোটি ডলার। যুক্তরাষ্ট্র মূলত সরকারি বন্ড বিক্রির মাধ্যমে ঋণ জোগাড় করে থাকে। ঋণের ক্ষেত্রে কম সুদের হার ভোগ করে দেশটি। কারণ বৈশ্বিক বিনিয়োগকারীরা এই বিনিয়োগকে তুলনামূলকভাবে কম ঝুঁকি হিসেবে দেখেন।
এ পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় এ পর্যন্ত মারা গিয়েছেন ৭০ হাজার, আক্রান্ত হয়েছেন ১২ লাখের বেশি মানুষ। চাকরি হারিয়েছেন ২ কোটি কর্মজীবী।