সুসান্ত সিংহ রাজপুতের রহস্যময় মৃত্যু

7

অভিনেতা সুসান্ত সিংহ রাজপুতের রহস্যময় মৃত্যু। রোববার সকালে মুম্বাইয়ের বান্দ্রার বাড়ি থেকে উদ্ধার হয় তার মরদেহ। পুলিশের দাবি, গলায় ফাঁস দিয়ে ঝুলন্ত অবস্থায় পাওয়া যায় তাকে। তিনি আত্মহত্যা করেছেন বলেই প্রাথমিকভাবে অনুমান পুলিশের।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, এদিন সকালে সুশান্ত সিংহ রাজপুতের বাড়ির পরিচারক থানায় ফোন করে খবর দেন। তার পরেই ঘটনাস্থলে পৌঁছায় পুলিশ। সেখানে তার মরদেহ উদ্ধার হয়। তবে ঠিক কী কারণে তিনি আত্মহত্যা করে থাকতে পারেন, তা নিয়ে নানা জল্পনা উঠে আসছে। শোনা যাচ্ছে, বেশ কিছু ছবি মুখ থুবড়ে পড়ায় অবসাদে ভুগছিলেন তিনি। তবে এ ব্যাপারে নিশ্চিত ভাবে কিছু জানা যায়নি।

মুম্বাই পুলিশের মুখপাত্র তথা ডিসিপি প্রণয় অশোক বলেন, ‘‘সুশান্ত সিংহ রাজপুত আত্মহত্যা করেছেন। কোন সুইসাইড নোট উদ্ধার হয়নি। মুম্বাই পুলিশ বিষয়টি তদন্ত করে দেখছে।’’

১৯৮৬ সালের ২১ জানুয়ারি পটনায় জন্মগ্রহণ করেন সুশান্ত সিংহ রাজপুত। পরবর্তীকালে দিল্লিতে চলে আসে তার পরিবার। দিল্লি কলেজ অব ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিংয়েও ভর্তি হন। কিন্তু সেইসময় থেকেই থিয়েটারের দিকে ঝোঁকেন তিনি। নাচও শেখেন। তার জন্য পড়াশোনা শেষ করতে পারেননি।

অভিনয়ের তাগিদ থেকেই শেষ মেশ মুম্বাইয়ে চলে আসেন সুশান্ত। সেখানে ২০০৮ সালে প্রথম একতা কপূরের প্রযোজনায় ‘কিস দেশ মে হ্যায় মেরা দিল’ সিরিয়ালে অভিনয় করার সুযোগ পান। সিরিয়ালে অল্প দিনের মধ্যেই তার চরিত্রটির মৃত্যু হয়।

তবে সেখান থেকেই একতা কপূরের সঙ্গে বন্ধুত্ব হয়ে যায় তার। সেই সূত্রেই ২০০৯ সালে ‘পবিত্র রিস্তা’ সিরিয়ালে মুখ্য চরিত্রে অভিনয়ের সুযোগ পান তিনি। তারপর আর পিছন ফিরে তাকাতে হয়নি তাকে। সিরিয়ালে অভিনয় করতে করতেই ‘জরা নাচকে দিখা’ এবং ‘ঝলক দিখলা জা’-র মতো রিয়্যালিটি শোয়ে অংশগ্রহণ করেন তিনি।

কিন্তু এই সময়ই টিভি সিরিয়াল থেকে বলিউডের দিকে ঝুঁকতে শুরু করেন সুশান্ত। সেই মতো ‘পবিত্র রিস্তা’ ছেড়ে বিদেশে ফিল্মমেকিং কোর্স করতে চলে যান। সেখান থেকে ফিরে অভিষেক কপূরের ‘কাই পো চে’ ছবির জন্য অডিশন দেন।

চেতন ভগতের ‘দ্য থ্রি মিসটেকস অব মাই লাইফ’ বইয়ের গল্প অবলম্বনে তৈরি ‘কাই পো চে’-তে তাঁর সঙ্গে অভিনয় করেন রাজকুমার রাও এবং অমিত সাধও। ছবিতে সুশান্তের অভিনয়ের প্রশংসা কুড়োয়। বাণিজ্যিক ভাবেও ছবিটি সফল হয়।

এরপর একে একে ‘শুদ্ধ দেশি রোম্যান্স’, ‘পিকে’, ‘ডিটেক্টিভ ব্যোমকেশ বক্সী’-র মতো ছবিতে অভিনয় করেন সুশান্ত। ভারতীয় ক্রিকেটার মহেন্দ্র সিংহ ধোনির চরিত্রে তার বায়োপিক ‘এমএস ধোনি: দ্য আনটোল্ড স্টোরি’-তে তার অভিনয় সমালোচকদের প্রশংসা কুড়োয়। ‘কেদারনাথ’ ছবিতে তারই বিপরীতে অভিনয়ে হাতেখড়ি হয় সারা আলি খানের।

তবে ২০১৭ সালে তার অভিনীত ‘রাবতা’ ছবিটি বক্সঅফিসে মুখ থুবড়ে পড়ে। গত বছর সুশান্তের তিনটি ছবি মুক্তি পায়। তার মধ্যে ‘ছিছোড়ে’ হিট হলেও, ‘সোন চিড়িয়া’ বক্সঅফিসে সাফল্যের মুখ দেখেনি। ‘ড্রাইভ’ ছবিটি সরাসরি নেটফ্লিক্সে মুক্তি পায়। সব জায়গা থেকেই নেগেটিভ রিভিউ পায় ছবিটি। তাতেই সুশান্ত ভেঙে পড়েছিলেন বলে জানা গিয়েছে।

তবে ব্যক্তিগত জীবনেও দীর্ঘ টানাপড়েনের মধ্য দিয়ে গিয়েছেন সুশান্ত। সিরিয়ালে অভিনয় করার সময় অভিনেত্রী অঙ্কিতা লোখন্ডের সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন তিনি। দু’জনে লিভ ইনও করতেন। কিন্তু সুশান্ত বলিউডে পা রাখার কিছু দিনের মধ্যেই সেই সম্পর্ক ভেঙে যায়। সম্প্রতি অভিনেত্রী রিয়া চক্রবর্তীর সঙ্গে তার ঘনিষ্ঠতা রয়েছে বলে শোনা গিয়েছিল।

সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা