আগাম ১৫ লাখ কবর খুঁড়ে রেখে প্রস্তুতি নিচ্ছে দক্ষিণ আফ্রিকা

25

করোনাভাইরাসের কারণের বিশ্বে বিভিন্ন দেশের করুন অবস্থা। এত মানুষের মৃত্যুতে থমকে গেছে সার্বিক জীবনযাত্রা। কোনো কোনো দেশে লাশ কবর দেয়ার মানুষ পাওয়া যাচ্ছে না।

এদিকে করোনা পরিস্থিতি দিন দিন ভয়াবহ হয়ে উঠছে দক্ষিণ আফ্রিকায়। আক্রান্ত ও মৃতের দিকে আফ্রিকাতে শীর্ষে আছে দেশটি।

আলজাজিরা জানায়, পরিস্থিতি আরও খারাপ হওয়ার আশঙ্কায় আগাম কবর খুঁড়ে রেখে প্রস্তুতি নিচ্ছে দক্ষিণ আফ্রিকা। গাওতেং প্রদেশেই এসব কবর খোঁড়া হবে। দেশটিতে করোনার সবচেয়ে বড় হট স্পট এই প্রদেশ।

গাওতেং কর্তৃপক্ষ নিজ দায়িত্বে এসব কবর খুঁড়ছে। অন্তত ১৫ লাখ কবর খোঁড়ার প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে বলে কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে।

প্রাদেশিক কাউন্সিলের সদস্য এবং একজন চিকিৎসক ডা. বান্দিলে মাসুকু জানান, এটি অস্বস্তিকর একটি সিদ্ধান্ত। এখন জনসাধারণের দায়িত্ব, এসব কবরের যাতে প্রয়োজন না হয়।

রাজধানী প্রেতোরিয়া এবং দেশটির সবচেয়ে বড় শহর জোহান্সবার্গ গাওতেং প্রদেশেরই অন্তর্ভুক্ত। জোহান্সবার্গ এই অঞ্চলের রাজধানী।

গাওতেংয়ে আক্রান্তের সংখ্যা ৭১ হাজার ছাড়িয়ে গেছে, যা দেশের মোট আক্রান্তের ৩৩ শতাংশ।

দক্ষিণ আফ্রিকায় দুই লাখ ১৫ হাজারের বেশি মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। গত কয়েকদিন ধরে দৈনিক সর্বোচ্চ আক্রান্তের তালিকায় শীর্ষ তালিকায় থাকছে দেশটি। এর মধ্যে প্রাণঘাতী ভাইরাসটিতে মারা গেছেন ৩ হাজার ৬০২ জন।