চোর ধরেও চোর হয়ে যাচ্ছি: প্রধানমন্ত্রী

28

দুর্নীতির দায়ে অভিযুক্তদের শাস্তি দেয়ার পদক্ষেপ নেয়ার পরও সমালোচিত হওয়ায় ‘চোর ধরেও চোর হয়ে যাচ্ছি’ বলে সংসদে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

সম্প্রতি রিজেন্ট হাসপাতালের মালিক মোহাম্মদ শাহেদের সাথে আওয়ামী লীগের সংশ্লিষ্টতা এবং স্বাস্থ্য খাতে দুর্নীতির বিষয়গুলো নিয়ে সংসদে বিরোধী দলের সদস্যদের সমালোচনার জবাবে বাজেট অধিবেশনের সমাপনী বক্তৃতায় এ কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘কে কোন দলের সেটা বড় কথা না। কে এ ধরণের দুর্নীতি, অনিয়মের সাথে জড়িত – আমরা যাকেই পাচ্ছি, যেখানেই পাচ্ছি ধরছি।’

‘আর ধরছি বলেই যেন আমরা চোর ধরে চোর হয়ে যাচ্ছি। আমরাই ধরি আবার আমাদেরকেই দোষারোপ করা হয়। এটাই হলো দুর্ভাগ্য,’ মন্তব্য করেন তিনি।

সম্প্রতি নানা অনিয়মের অভিযোগে সিলগালা করে দেয়া রিজেন্ট হাসপাতালের মালিক মোহাম্মদ শাহেদের সাথে আওয়ামী লীগের অনেক নেতার ছবি সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ায় তা নিয়ে ব্যাপক আলোচনা তৈরি হয়েছে।

করোনাভাইরাস পরীক্ষার ভুয়া রিপোর্ট দেয়াসহ নানা অভিযোগে অভিযুক্ত রিজেন্ট হাসপাতালের মালিক মো: শাহেদ নিজেকে আওয়ামী লীগের সাথে সম্পৃক্ত বলে দাবি করতেন।

গত বছরের সেপ্টেম্বরে দুর্নীতিবিরোধী অভিযানে অবৈধ ক্যাসিনো বাণিজ্যে জড়িত থাকার অভিযোগে যুবলীগ এবং কৃষক লীগের বেশ কয়েকজন নেতা গ্রেফতার হন। সেই পরিস্থিতিও আওয়ামী লীগকে প্রশ্নের মুখে ফেলেছিল।

ওই ঘটনার পর ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ তাদের যুব সংগঠন যুবলীগসহ সহযোগী সংগঠনগুলো ঢেলে সাজানোর উদ্যোগ নেয়।

সূত্র : বিবিসি