‘করোনার চেয়ে বেশি মানুষ মারা যাবে ক্ষুধায়’

13

করোনায় আক্রান্ত হয়ে যত মানুষ মারা যাবে, তার চেয়েও বেশি মানুষ মারা যেতে পারে করোনার খাদ্যের অভাবে। এমনটাই মতবাদ আন্তর্জাতিক দাতব্য সংস্থা অক্সফাম এর।

আজ বৃহস্পতিবার প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে সংস্থাটি বলছে, করোনার প্রভাব ক্ষুধা সংকটকে আরও খারাপ পরিস্থিতির দিকে নিয়ে যাচ্ছে। করোনার সামাজিক ও অর্থনৈতিক বিরূপ প্রভাবে সৃষ্ট ক্ষুধায় প্রতিদিন ১২ হাজার মানুষ মারা যেতে পারে।

‘দ্য হাঙ্গার ভাইরাস’ শীর্ষক অক্সফামের ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বেকারত্বের হার বেড়ে যাবার ফলে খাদ্য উৎপাদন এ ঘাটতি আছে এবং কমে গেছে মানুষের সহায়তার হাত। আর তাই এ বছর প্রায় ১২ কোটি মানুষ না খেয়ে মরে যেতে পারে।

দাতব্য সংস্থাটির মতে ইয়েমেন, আফগানিস্তান, সিরিয়া ও দক্ষিণ সুদানসহ বিশ্বের সবচেয়ে বেশি দরিদ্র অঞ্চলগুলোতে খাদ্য সংকট আরও বেড়েছে। পাশাপাশি বন্ধ হয়ে গেছে প্রয়োজনীয় পণ্যের সরবরাহ। প্রবাসী আয় বিপুল পরিমাণে কমে গেছে।

অক্সফাম জিবির প্রধান নির্বাহী ড্যানি শ্রীস্কান্দারাজাহ বলেন, ‘মহামারির প্রভাব ভাইরাসের চেয়ে অনেক বেশি বিস্তৃত এবং বিশ্বের লাখো দরিদ্র মানুষকে ক্ষুধা ও দারিদ্র্যের গভীরে ঠেলে দিয়েছে। সরকারগুলো এখন জাতিসংঘ কোভিড-১৯ আবেদন তহবিলে অর্থায়ন করে এবং মহামারি মোকাবিলায় সংঘাতের অবসান ঘটাতে জীবন বাঁচাতে পারে।’

অক্সফাম বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচি অনুমান করছে যে,এই বছর শেষ হবার আগেই ক্ষুধার তাড়নায় আছে এমন মানুষের সংখ্যা বেড়ে ২৭ কোটিতে যাবে, যা গত বছর ১৪ দশমিক ৯ কোটি ছিল।