কাট্টলী টেক্সটাইলকে কোটি টাকা জরিমানা

23

পুঁজিবাজার থেকে আইপিওর মাধ্যমে টাকা তুলে, সেই টাকার সঠিক ব্যবহার না করে নিয়ন্ত্রক সংস্থাকে মিথ্যা তথ্য দেওয়ায় কাট্টলী টেক্সটাইল মিলসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও পরিচালকদের জরিমানা করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিএসইসির নিয়মিত সভায় এই সিদ্ধান্ত হয়েছে বলে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।

কাট্টলী টেক্সটাইল মিলসের ব্যবস্থাপনা পরিচালকে ১ কোটি টাকা এবং স্বাধীন পরিচালক বাদে অন্য পরিচালকদের ৫০ লাখ টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে।

কাট্টলী টেক্সটাইলের ওয়েবসাইটের তথ্য অনুযায়ী, ব্যবস্থাপনা পরিচালক হচ্ছেন এমদাদুল হক চৌধুরী। পরিচালক হিসেবে আছেন আনয়ারুল হক চৌধুরী, মোকাররম হক চৌধুরী, ওয়াদুদ সাবরিনা, সিফাট সাবরিনা। প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান নাসরিন হক। কাট্টলী টেক্সটাইল মিলস লিমিটেড পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হয় ২০১৮ সালে। আইপিওর মাধ্যমে পুঁজিবাজার থেকে তারা মোট ৩৪ কোটি টাকা তুলেছিল।

তারা জানিয়েছিল, ৩৪ কোটি টাকার মধ্যে ৫১ শতাংশ টাকা খরচ করবে নতুন কারখানা ভবনের জন্য, ৭ দশমিক ৪৪ শতাংশ টাকা খরচ করবে কর্মীদের ডর্মিটরি তৈরির জন্য, ২৬ দশমিক ৪১ শতাংশ টাকা খরচ করবে নতুন যন্ত্রপাতি কেনার জন্য, বাকি টাকা খরচ করবে ব্যাংক ঋণ ফেরত দিতে।

২০২০ সালের ৩০ এপ্রিল কাট্টলী টেক্সটাইল একটি প্রতিবেদন দেয়, যাতে উলেস্নখ করা হয় তারা ৭ কোটি ৬২ লাখ ৭৮ হাজার টাকা ৬৪৫ টাকা খরচ করেছে। আর ২৬ কোটি ৩৭ লাখ ২১ হাজার ৩২৫ টাকা খরচ করতে পারেনি। কিন্তু বিএসইসি তদন্ত করে দেখতে পায়, কাট্টলী টেক্সটাইল মিলস টাকা খরচ তো করেইনি, বরং তারা মিথ্যা তথ্য দিয়েছে এবং জাল দলিল তৈরি করে নিয়ন্ত্রণ সংস্থাকে দিয়েছে।