hasina

গাইবান্ধার পলাশবাড়ীতে ইসলামী ব্যাংকের শাখা উদ্বোধন

14

ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড-এর ৩৭৫ তম শাখা হিসেবে গাইবান্ধার কালীবাড়ী বাজার রোডে ‘পলাশবাড়ী শাখা’ ১১ অক্টোবর ২০২১, সোমবার উদ্বোধন করা হয়েছে। ব্যাংকের ম্যানেজিং ডাইরেক্টর ও সিইও মুহাম্মদ মুনিরুল মওলা প্রধান অতিথি হিসেবে শাখার উদ্বোধন করেন।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন ব্যাংকের অ্যাডিশনাল ম্যানেজিং ডাইরেক্টর মুহাম্মদ কায়সার আলী, এক্সিকিউটিভ ভাইস প্রেসিডেন্ট মিফতাহ উদ্দীন, পলাশবাড়ী উপজেলা চেয়ারম্যান একেএম মোকছেদ চৌধুরী বিদ্যুৎ, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ কামরুজ্জামান এবং পলাশবাড়ী পৌর মেয়র মোঃ গোলাম সারোয়ার বিপ্লব। ব্যাংকের সিনিয়র এক্সিকিউটিভ ভাইস প্রেসিডেন্ট মোঃ মাহবুব আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন ব্যাংকের বগুড়া জোনপ্রধান মোঃ আব্দুস সোবহান।

গ্রাহক শুভানুধ্যায়ীদের পক্ষ থেকে বক্তব্য দেন পলাশবাড়ী প্রেসক্লাবের সভাপতি রবিউল হোসেন পাতা, আল-আমিন ট্রেডার্স এর স্বত্বাধিকারী মোঃ আল আমিন, নারী উদ্যোক্তা ঢলী রানী, ফ্যামাস ফ্যাশন হাউজ এর স্বত্বাধিকারী মোছাঃ তাজনীন সুলতানা এবং ব্যবসায়ী নির্মল চন্দ্র। ব্যাংকের রংপুর জোনপ্রধান মীর রহমত উল্লাহ, সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট খালেদ মাহমুদ রায়হান, এফসিসিএ, অ্যাসিস্ট্যান্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট এ.এম. শহীদুল এমরান সহ বগুড়া জোনের শাখাপ্রধান, নির্বাহী-কর্মকর্তা, গ্রাহক, শুভানুধ্যায়ী এবং গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

প্রধান অতিথির ভাষণে মুহাম্মদ মুনিরুল মওলা বলেন, ইসলামী ব্যাংক বর্তমানে ৩৭৫টি শাখা, ২০০টি উপশাখা, ২৬০০টি এজেন্ট আউটলেটের মাধ্যমে গ্রাহকদের আধুনিক প্রযুক্তিসমৃদ্ধ সেবা প্রদান করছে। উন্নত ও আন্তরিক গ্রাহকসেবার মাধ্যমে ইসলামী ব্যাংক দেশের জনগণের আস্থা ও বিশ্বাসের প্রতিষ্ঠানে পরিণত হয়েছে। তিনি বলেন, সরকারী কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বিনিয়োগ সুবিধা প্রদানসহ সরকারঘোষিত প্রণোদনা ও অগ্রাধিকার খাতে বিনিয়োগের কার্যক্রম সফলভাবে পরিচালনা করছে ইসলামী ব্যাংক। অটোমেটেড চালান সিস্টেমের মাধ্যমে আয়কর ও পাসপোর্ট ফি, সরকারি রাজস্ব ও ফি ইসলামী ব্যাংকের সকল শাখা ও উপশাখার সহজেই পরিশোধ করা যাচ্ছে।

তিনি আরো বলেন, মানুষের খাদ্য নিরাপত্তা, কর্মসংস্থান, দারিদ্র বিমোচন, মানব সম্পদের সর্বোচ্চ ব্যবহারের জন্য ইসলামী বাংক প্রয়োজনভিত্তিক বিনিয়োগ করছে। পলাশবাড়ী শাখার মাধ্যমে এ অঞ্চলের ব্যবসার প্রসার ও উদ্যোক্তা উন্নয়নকে গুরুত্ব দিয়ে ব্যাংকিং কার্যক্রম পরিচালনা করাসহ ইন্টারনেট ব্যাংকিং, সেলফিন অ্যাপ ও অন্যান্য প্রযুক্তিসমৃদ্ধ সেবা ছড়িয়ে দিতে কর্মকর্তাদের নির্দেশনা দেন তিনি।