থিমপার্কে দর্শনার্থীদের নতুন অভিজ্ঞতা দেবে ভিআর

2

দর্শনার্থীদের নতুন অভিজ্ঞতা দিতে মনস্টার ট্রাক, ভার্চুয়াল রিয়েলিটি জম্বি ওয়ারফেয়ার, স্মেলস্কেপিং প্রভৃতির সমন্বয়ে লন্ডনে গড়ে তোলা হচ্ছে ভবিষ্যতের থিমপার্ক। কনভেনশন সেন্টারের হলরুম হাইড্রলিকস রকিং রাইডারদের জন্য নির্মিত মনস্টার ট্রাক এবং থ্রিডি প্রিন্ট করা নয় ফুট লম্বা এলিয়েন দিয়ে সাজানো ছিল। পাশাপাশি বেশ কয়েকটি পূর্ণ আকারের বোলিং লেন এবং পুরো একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের জন্মদিনের পার্টি আয়োজনের উপযোগী অন্যান্য খেলার আইটেমও ছিল।

রোলারকোস্টার প্রস্তুতকারী কোম্পানি ম্যাক রাইডস জার্মানিতে তাদের নিজস্ব ইউরোপা পার্কে পাঠানো ছাড়াই লন্ডনের দর্শনার্থীদের ভিআর প্রযুক্তি ব্যবহার করে নিজস্ব কিছু রাইড প্রদর্শন করতে পারে। সেক্ষেত্রে থিমপার্কে আসা দর্শনার্থীরা ভার্চুয়াল রিয়েলিটি (ভিআর) হেডসেট ব্যবহার করে বাস্তবে দানবীয় ট্রাক চালানোর অভিজ্ঞতা নিতে পারবে।

থিমপার্ক প্রযুক্তির ধারণাটি মানুষের সামাজিক মেলামেশার ক্ষেত্রেও কাজে লাগবে। ডাচ কোম্পানি ডার্ক রাইডসের ল্যাগোট্রনিকস প্রজেক্টের প্রধান নির্বাহী মার্ক বিউমারস মনে করেন, দর্শনার্থীরা যেহেতু প্রযুক্তির সঙ্গে বড় হয়েছে, তাদের বাড়িতে প্রচুর প্রযুক্তি রয়েছে। তবে তারা ঘরে বসে অনুভব করার চেয়ে থিমপার্কে প্রযুক্তির অভিজ্ঞতা আরো ভিন্ন ও ভালো উপায়ে করতে চায়। তাই একটি থিমপার্ককে অতিরিক্ত পদক্ষেপ হিসেবে নিতে হবে।

বিউমার্স বলেন, ভিআরের কিছু সীমাবদ্ধতা আছে। ভিআর হেডসেটগুলো চালু ও বন্ধ করা এবং পুনরায় রাইডগুলো লোড করতে অনাকাঙ্ক্ষিত বিলম্ব হতে পারে। এমনকি পরিবার ও বন্ধুদের সঙ্গে থিমপার্কে এসে অভিজ্ঞতা ভাগ করে নেয়ায় অসুবিধা হতে পারে। ২০১৮ সালের শুরুতে প্রযুক্তিটি কিছু পার্কে চালু হলেও কয়েক বছরে কভিডের প্রভাব অপারেটরদের এ বিষয়ে নতুনভাবে ভাবার সুযোগ করে দিয়েছে।